খবরের বিস্তারিত...

peace tv ban

জঙ্গীবাদ দমনে সর্বদলীয় জাতীয় ঐক্য চাই- আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী

জুলাই 09, 2016 বিবৃতি

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ চেয়ারম্যান ও মহাসচিব আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী ও আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর সাম্প্রতিক গুলশান হামলার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে জঙ্গিবাদ বিরোধী জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠার জোর দাবি জানিয়েছেন।

নেতৃবৃন্দ এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, জঙ্গিবাদ নিছক কোন দল বা সরকারের একার সমস্যা নয়। এটা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সমস্যা। তাই এ সমস্যা সমাধানে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র রুখতে সর্বদলীয় জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে। রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধী ব্যতীত নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত অন্যান্য রাজনৈতিক দল সমূহ নিয়ে অবিলম্বে জঙ্গিবাদ বিরোধী জাতীয় ঐক্য সময়ের দাবি।
তাঁরা বলেন, ধর্মের নামে মানুষ হত্যা যুগপৎ ধর্মদ্রোহিতা ও রাষ্ট্রদ্রোহিতার নামান্তর। ইসলাম মানবতার ধর্ম। রাষ্ট্রে কোন অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ইসলাম অনুমোদন বা সমর্থন করে না। একজন মুসলমান কখনোই জঙ্গিবাদকে লালন বা সমর্থন করতে পারে না। নেতৃবৃন্দ সরকারকে জঙ্গিবাদের মূলোৎপাটনে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, ধর্ম সম্পর্কে অসচেতনতাই জঙ্গিবাদের প্রসারে দায়ী। শান্তির সুন্দর জীবনব্যবস্থা দ্বীন ইসলামের শিক্ষার বিপরীতে ধর্মের অপব্যাখ্যা ও মহানবীর সম্মানে অবমাননা জঙ্গিবাদের শিকড় বিস্তার করছে। হাজার বছরের শান্তির সমুজ্জ্বল আদর্শ ইসলামের মূল মর্মবাণী থেকে দূরে সরে আহলেে হাদীস, নজদী, মওদুদীবাদী, লা-মাজহাবীরা জঙ্গিদের প্রচার প্রসারে ভূমিকা পালন করছে। অথচ দুঃখজনক হলেও সত্য ইসলাম বিকৃতিকারী আহলে হাদীস, লা-মাজহাবী ও মওদুদীবাদীদের অনুষ্ঠানাদিতে সরকারের দায়িত্বশীল মন্ত্রীদের যোগদান জঙ্গিবাদকে উৎসাহিত করেছে।
নেতৃবৃন্দ বিতর্কিত পিস টিভি বন্ধের দাবি জানিয়ে বলেন, জঙ্গিবাদী আহলে হাদীস মতবাদে বিশ্বাসী পিস টিভি সুকৌশলে ইসলামী লেবাস ধারণ করে ইসলামের মর্মমূলে কুঠারাঘাত করে যাচ্ছে। পিস টিভির বক্তারা জঙ্গিদের আদর্শিক আইকন বা গুরু। দেশে বিদেশে বিকৃত সালাফী ও আহলে হাদীস নেতাদের বক্তৃতা প্রচারের মধ্য দিয়ে পিস টিভি বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ প্রচার করছে। আমরা ইতিপূর্বেও পিস টিভি বন্ধ করতে সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছি। অথচ দীর্ঘদিন পরও পিস টিভি বন্ধ না হওয়ায় জঙ্গিরা আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।
নেতৃবৃন্দ সালাফী জঙ্গিদের কর্তৃক বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আল্লামা নুরুল ইসলাম ফারুকী হত্যাকান্ডের বিচার করতে সরকারের গড়িমসিতে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, চিহ্নিত সালাফী জঙ্গিদের হাতে আল্লামা ফারুকী শহীদ হয়েছেন। অথচ দীর্ঘ দুই বছর পার হয়ে গেলেও জঙ্গিদের কোনও বিচার করা হয়নি। এতে তারা পরবর্তীতে পীর খিজির খান সহ নিরীহ মানুষদের হত্যার হোলিখেলায় মেতে উঠেছে। গুলশান হামলা জঙ্গিদের দমনে সরকারের নীরবতার ফসলমাত্র। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে পিস টিভি বন্ধ সহ আল্লামা ফারুকী ও পীর খিজির খান হত্যার বিচার করতে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন।

Comments

comments

Related Post