খবরের বিস্তারিত...

29751080_2004140519912581_470088422_n

মনোনয়ন পত্র বৈধ হওয়ায় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে কর্ম পরিকল্পনা ঠিক করবেন ইসলামিক ফ্রন্ট

মিডিয়া সেল গঠন,জেলা উপজেলা পর্যায়ের নির্বাচন কর্মকর্তাদের বিষয়ে তদারকি সেল করা ,ভোটকেন্দ্রের তালিকা প্রণয়ন,নির্বাচনে পোলিং এজেন্ট প্রশিক্ষণ কমিটি সহ  প্রচার ও প্রকাশনার মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় প্রাথমিক পরিকল্পনায় রয়েছে ।

উল্লেখ্য গত ০২/১২/২০১৮ইং একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র বাছাই পর্বে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ্‌ মোজাদ্দেদী ও ইসলামিক ফ্রন্ট মহাসচিব শায়খুল হাদিস আল্লামা জয়নুল আবেদিন জুবাইর সহ দলের অপরাপর প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জেলা রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক বৈধতা ঘোষণা করায় এই সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে দলের হাই কমান্ড । আগামী ৩০শে ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে চেয়ার প্রতীকে অংশগ্রহণ করার জন্য পূর্ণ প্রস্তুতি গ্রহন করেছে ।

মহাজোটের সাথে আসন বণ্টন নিয়ে দাবী পুরন না হলে এককভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ ।  ইসলামিক ফ্রন্ট মহাজোটের কাছে ২০টি আসনের চূড়ান্তভাবে তালিকা দিয়েছে। জোটের মধ্যে জাতীয় পার্টির পরে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের অবস্থান ভালো। সারাদেশে আমাদের দলের অবস্থান ভালো। আমরা বিগত জাতীয় নির্বাচন,সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন, উপজেলা নির্বাচন সহ বিভিন্ন নির্বাচনে নিজেদের অবসথান জানান দিয়েছি ।

Comments

comments

Related Post