খবরের বিস্তারিত...

69552926_2323496421298281_5224602882635988992_n

দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র রুখে দাঁড়াতে দেশপ্রেমিক জনতার ঐক্যের বিকল্প নেই—ইসলামিক ফ্রন্ট

আগস্ট 31, 2019 সাংগঠনিক খবর

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ইসলামিক ফ্রন্টের বিশাল সমাবেশে-আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী-
দেশদ্রোহী অপশক্তি বিশ্ব অঙ্গনে এদেশকে অকার্যকর ও সন্ত্রাসী রাষ্ট্র হিসেবে চিত্রিত করতে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।।

কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে পাক-ভারত মধ্যকার রণপ্রস্তুতি উপমহাদেশ জুড়েই উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ার আশংকা রয়েছে- অধ্যক্ষ আল্লামা জুবাইর।।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর মাননীয় চেয়ারম্যান পীরে কামেল জাতীয় নেতা আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী বলেছেন,- দেশ এখন স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনের দ্বারপ্রান্তে উপনীত হলেও দেশদ্রোহী অপশক্তি অদ্যাবধি এদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে মেনে নিতে পারেনি। যেকারণে বহুমাত্রিক ষড়যন্ত্রের জাল বিস্তৃত করে জাতীয় উন্নয়ন-অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করছে প্রতিনিয়ত। অভিশপ্ত জঙ্গিবাদী সন্ত্রাসের বিস্তৃতি ঘটিয়ে গোটা দেশকে আতংকের জনপদে পরিণত করার মাধ্যমে বিদেশী বিনিয়োগকে অনুৎসাহিত করা হচ্ছে। দেশের অন্যতম প্রধান রপ্তানি শিল্প গার্মেন্টস সেক্টরে শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টির দরুন রপ্তানি আয়ের চাকা শ্লথ হয়ে পড়েছে। ব্যাংকিং সেক্টরের নৈরাজ্য সৃষ্টি তথা পাট ও চামড়া শিল্পকে অনিবার্য ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়ার কারণে জাতীয় অর্থনীতি ক্রমাগতভাবে পশ্চাৎমুখীতার দিকে ধাবিত হচ্ছে। জঙ্গিবাদী তকমার কারণে বিদেশী শ্রমবাজারে ধস নেমেছে। যৎকারণে রেমিটেন্স প্রবাহের ব্যারোমিটার খুবই নি¤œমূখী। এছাড়াও রাজনৈতিক হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার অভিপ্রায়ে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে দেশের বিরুদ্ধে বিষোদগার ও কুৎসা রটিয়ে দেশের মর্যাদা ও ভাবমূর্তিকে ভূলুন্ঠিত করা হচ্ছে। দেশদ্রোহী অপশক্তি বিশ্ব অঙ্গনে এদেশকে অকার্যকর ও সন্ত্রাসী রাষ্ট্র হিসেবে চিত্রিত করতে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব জাতীয় নেতা শায়খুল হাদিস অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর বলেছেন,- কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে পাক-ভারত মধ্যকার রণপ্রস্তুতি ক্রমশ: উপমহাদেশ জুড়েই উত্থাপ ছড়িয়ে পড়ার আশংকা রয়েছে। এমতাবস্থায় বাংলাদেশের কোন পক্ষাবলম্বন সমীচিন নয়, বরঞ্চ দুরদর্শী কুটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে কাশ্মীরি জনগণের সাংবিধানিক ন্যায্য অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে বলিষ্ট ভূমিকায় এগিয়ে আসা উচিত বলে তিনি মত ব্যক্ত করেন। রোহিঙ্গাদের নিঃশর্ত স্থান দিয়ে বাংলাদেশ মহামানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেও এরা এখন ‘গোদের উপর বিষফোঁড়ায়’ পরিণত হয়েছে। এমন কোন অনৈতিক কিংবা গর্হিত কাজ নেই যার সাথে এরা জড়িয়ে পড়ে নাই। যৎকারণে দেশের সুস্থতা, শান্তি-শৃংখলা বিঘিœত হওয়া ছাড়াও দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বকে এক বিরাট হুমকির মুখে নিপতিত করেছে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে একদিকে আন্তর্জাতিক বিশ্ব সম্মত হলেও অপরদিকে মিয়ানমারে সুস্থ পরিবেশ সৃষ্টি না হওয়া পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের না পাঠাতে বাংলাদেশের উপর চাপ সৃষ্টি করছে। যা কোনভাবেই এদেশের জন্য ইতিবাচক নয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।

ইসলামী ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সভাপতি ছাত্রনেতা এম.এম.নাঈম উদ্দিন  বলেছেন,- সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্ব মোড়ল মার্কিন প্রেসিডেন্টের নিকট বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ‘প্রিয়া সাহার’ নির্লজ্জ মিথ্যাচার ও বিষোদগারের সাথে দেশবিরোধী অশুভ ষড়যন্ত্রের সাদৃশ্যতা খুঁজে পাওয়া যায়। দেশের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক মিথ্যা অভিযোগকারী নাস্তিক প্রিয়া সাহাকে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলায় বিচার করতে হবে। পাশাপাশি চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্কুলে নিষ্কলুষ শিশুদের প্রসাদ খাইয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার ষড়যন্ত্রকারী হিন্দুত্ববাদী সংগঠন ‘ইসকনকে’ নিষিদ্ধ ঘোষনার জন্যও তিনি জোর দাবী জানান।

চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা ইসলামিক ফ্রন্টের সভাপতি স ম হামেদ হোসাইন বলেছেন,- দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাথে অন্যতম যোগাযোগ মাধ্যম কালুরঘাট সেতু পুণ: নির্মাণ এখন দক্ষিণ চট্টগ্রামবাসীর প্রাণের দাবিতে পরিণত হয়েছে। তাই অবিলম্বে কালুরঘাট সেতু পুণ: নির্মাণে বাজেট বরাদ্দ সহ কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ, দক্ষিণ চট্টগ্রামে একটি সরকারি মেডিকেল কলেজ স্থাপন সহ শংখ নদীর ভাঙ্গনরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের নিকট জোর দাবী জানান।

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ ও ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলার উদ্যোগে অদ্য ৩১ আগষ্ট ২০১৯ ইং রোজ শনিবার বিকেল ২টায় মইজ্জ্যারটেক টোল প্লাজার পার্শ্বস্থ এম.রহমান কনভেনশন সেন্টারে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে জনমত গঠনের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত বিশাল সমাবেশে বক্তারা উপরোক্ত মন্তব্য করেন। ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি জননেতা স ম হামেদ হোসাইন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান জাতীয় নেতা পীরে তরিকত আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় মহাসচিব জাতীয় নেতা শায়খুল হাদীস অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান পীরে তরিকত হযরতুলহাজ্ব আল্লামা সৈয়দ নাছেরুল হক চিশতী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট আলহাজ্ব এম.আবু নাছের তালুকদার,ভাইস চেয়ারম্যান আল্লামা আলহাজ্ব কাজী জসিম উদ্দীন, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এম.সোলায়মান ফরিদ, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যক্ষ আল্লামা কাজী আনোয়ারুল ইসলাম খান, যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ্ব এস.এম.সিরাজ উদ্দীন তৈয়বী। স ম শওকত আজিজ ও অধ্যাপক শহীদুল্লাহ সাদার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,- চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব এইচ.এম.মুজিবুল হক শুক্কুর, কেন্দ্রীয় ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রাশেদ, পীরে তরিকত আল্লামা এরশাদুল্লাহ রজায়ী, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি অধ্যক্ষ আল্লামা ছৈয়দ মুহাম্মদ জসিম উদ্দীন তৈয়বী, অধ্যক্ষ আল্লামা নুরুল আমিন, ইলিয়াছ সিকদার, ইসলামী ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সভাপতি ছাত্রনেতা এম.এম.নাঈম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ছৈয়দ গোলাম হায়দার হাসিব, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সাধারণ সম্পাদক স ম শহীদুল হক ফারুকী, মহানগর সাধারণ সম্পাদক এম.মহিউল আলম চৌধুরী, আলহাজ্ব এ.এম.মঈন উদ্দিন চৌধুরী হালিম, মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, শফিকুল ইসলাম, মাষ্টার নুরুল আজিম, মালেক আশরাফী, আব্দুল্লাহ আল রেজা, মঈনুল ইসলাম ফরহাদ, মাষ্টার জাহাঙ্গীর, সেকান্দর রহহমান কায়সার, হারিছউদ্দিন দৌলতী, নুরুল হক সিকদার, মোহাম্মদ মনসুর, এ.কে.এম. আলাওউদ্দীন, ওয়াহিদুল্লাহ সিরাজী, ছাত্রনেতা এনামুল হক এনাম, নুরুল আবছার কফিল, কাজী সুলতান আহম্মদ, আব্দুল্লাহ আল মুনির,আবু রেহান ফয়সাল হাশেমী ও তাওহিদ মুরাদ সুমন প্রমুখ।

Comments

comments

Related Post